adSense

বুদ্ধের সর্বজ্ঞতা (মিলিন্দপ্রশ্ন)

বুদ্ধের সর্বজ্ঞতা

২০। “ভন্তে নাগসেন! বুদ্ধ সর্বজ্ঞ কি?” “হাঁ, মহারাজ! ভগবান সর্বজ্ঞ। তবে ইহার অর্থ এই নহে যে, সকল সময়ে সকল বিষয়ে তাঁহার জ্ঞান-দর্শন উপস্থিত থাকিত। ভগবানের সর্বজ্ঞতাজ্ঞান মানসিক চেতনার প্রতিফলন-সাপেক্ষ। (ধ্যানস্থ হইয়া) মানসিক প্রতিফলনের দ্বারা তিনি যথা ইচ্ছা জানিতে পারিতেন।”

“ভন্তে! যদি তাঁহার অণ্বেষণের দ্বারা সর্বজ্ঞতা জ্ঞান লাভ হয়, তাহা হইলে বুদ্ধ সর্বজ্ঞ নহেন।”

“মহারাজ! এক তুড়ি মারার সময়ে যত চিত্ত প্রবর্তিত হয়, উহাদের সংখ্যা নির্ণয়ের নিমিত্ত মাত্রা হিসাবে যদি ধান্য রাখা যায়, তবে ধান্যপূর্ণ একশত শকট, উহার অর্ধেক সংখ্যক ছোট গাড়ী, সপ্ত অস্মণ (২৮মন) ও দুই তুম্ব (৮ সের) ধান্য নিঃশেষে ক্ষয় হইয়া যাইবে (চিত্ত এত দ্র ত পরিবর্তনশীল)।

মহারাজ! সাত প্রকার চিত্ত প্রবর্তিত হয়। যাহারা রাগযুক্ত, দ্বেষযুক্ত, মোহযুক্ত, ক্লেশ (কুলুষ) যুক্ত এবং যাহারা কায়, শীল, চিত্ত ও প্রজ্ঞার ভাবনা করে নাইÍএই সাত প্রকার চিত্ত গুরুভাবে উৎপন্ন হয় ও ধীরে ধীরে প্রবর্তিত হয়।

কারণ কী?

চিত্তের ভাবনাহীনতার দরুণ। মহারাজ! বহু শাখা প্রশাখা বিস্তৃত, পরস্পর জটাবিজড়িত বাঁশের ঝাড় হইতে একটি বাঁশ ছেদন করিয়া আকর্ষণ করিলে উহার আগমন গুরুতর ও ধীরে ধীরে হয়। কেন?” শাখা সমূহের পরস্পর সংযোজন হেতু।

মহারাজ! এই প্রকারেই, যাহারা রাগযুক্ত, দ্বেষযুক্ত, মোহযুক্ত, ক্লেশ (কুলুষ) যুক্ত এবং যাহারা কায়, শীল, চিত্ত ও প্রজ্ঞার ভাবনা করে নাইÍএই সাত প্রকার চিত্ত, তাদের গুরুভাবে উৎপন্ন হয় ও ধীরে ধীরে প্রবর্তিত হয়। কারণ কী?

ক্লেশসমূহের সহিত বিশেষরূপে জড়িত বলিয়া এইরূপ হয়। ইহা প্রথম চিত্ত।

২১। দ্বিতীয় প্রকার চিত্ত বিভাগ নিুরূপÍমহারাজ! যাঁহারা স্রোতাপন্ন, যাঁহাদের অপায়দ্বার রুদ্ধ, যাঁহারা সম্যক্দৃষ্টি প্রাপ্ত ও শাস্তার ধর্ম অবগত হইয়াছেন, তাঁহাদের চিত্ত তিন বিষয়ে (সংযোজনে) লঘুভাবে উৎপন্ন ও লঘুভাবে প্রবর্তিত হয়। উপরের ভূমি (আর্যমার্গ) সমূহে গুরুভাবে উৎপন্ন হয় ও ধীরে প্রবাহিত হয়।

কারণ কী?

তিন বিষয়ে চিত্তের পরিশুদ্ধি হেতু এবং ইহাদের উপরিষ্ট বিষয়ে ক্লেশের অপ্রহীণতা হেতু এইরূপ হয়।

মহারাজ! যদি কোন বংশদ-ের তিন পর্বের গ্রন্থি পরিশুদ্ধ এবং উপরি অংশ শাখা-জটা বিজড়িত থাকে তাহা হইলে তাহা যদি আকর্ষণ করা যায় তবে প্রথম তিন পর্ব সহজে আসে, উহার উপর অংশ অনমনীয় থাকে। কারণ কী? নিচের অংশ পরিশুদ্ধ ও উপরের অংশ শাখা- জটা-বিজড়িত হেতু এইরূপ হইয়া থাকে। সেইরূপ যাঁহারা স্রোতপন্ন হইয়াছেন, যাঁহাদের অপায়দ্বার রুদ্ধ, যাঁহারা সম্যক্দৃষ্টি প্রাপ্ত ও শাস্তার ধর্ম অবগত হইয়াছেন, তাঁহাদের চিত্ত তিন বিষয়ে লঘুভাবে উৎপন্ন হয় ও লঘুভাবে প্রবর্তিত হয়। ইহাদের উপরিষ্ট বিষয়ে গুরু ও মন্দভাবে প্রবর্তিত হয় কারণ কী? তিন বিষয়ে চিত্তের পরিশুদ্ধি ও ইহাদের উপরিষ্ট বিষয়ে ক্লেশ প্রহীন না হওয়ায় এইরূপ হইয়া থাকে। ইহা দ্বিতীয় চিত্ত।

২২। তৃতীয় প্রকার চিত্ত বিভাগ নিুরূপÍমহারাজ! যাঁহারা সকৃদাগামী হইয়াছেন, যাঁহাদের রাগ-দ্বেষ-মোহ-ক্ষীণ হইয়াছে, তাহাদের চিত্ত পঞ্চ স্থানে লঘুভাবে উৎপন্ন হয়, লঘুভাবে প্রবর্তিত হয়। ইহাদের উপরিস্থানে গুরুভাবে উৎপন্ন, মন্দভাবে প্রবর্তিত হয়।

কারণ কী?

যেহেতু উক্ত পঞ্চস্থানে চিত্ত পরিশুদ্ধ হইয়াছে, আর ইহাদের উপরের ক্লেশ সমূহ প্রহীন হয় নাই।

মহারাজ! যদি কোন বংশদ-ের পঞ্চ পর্ব পর্যন্ত গ্রন্থি পরিশুদ্ধ এবং উপরে শাখা-জটা বিজড়িত থাকে তাহা হইলে তাহা আকর্ষণ করিলে পঞ্চপর্ব পর্যন্ত সহজে আসে, তাহার উপর অংশ অনমনীয় থাকে। কারণ কী? নিচে পরিশুদ্ধ এবং উপরে শাখা-জটা বিজড়িত হেতু এইরূপ হয়। মহারাজ! এই প্রকারে যাঁহারা সকৃদাগামী হইয়াছেন, যাঁহাদের রাগ-দ্বেষ-মোহ ক্ষীণ হইয়াছে (বা নামে মাত্র অবশিষ্ট আছে) তাহাদের চিত্ত পঞ্চস্থানে লঘু ও সতেজ হয় উপরে ভূমিতে গুরু ও নিস্তেজ হয়। ইহার কারণ কী? পঞ্চস্থানে চিত্তের পরিশুদ্ধি হেতু এবং উপরি ভূমিতে ক্লেশের অপ্রহীণতা হেতু। ইহা তৃতীয় চিত্ত।

২৩। চতুর্থ প্রকার চিত্ত বিভাগ নিুরূপÍমহারাজ! যাঁহারা অনাগামী হইয়াছেন, এবং যাঁহাদের চিত্ত নিুস্তরের পঞ্চ সংযোজন সমূচিন্ন হইয়াছে, উহাদের চিত্ত দশস্থানে লঘুভাবে উৎপন্ন হয়, লঘুভাবে প্রবর্তিত হয়। উপরের ভূমি সমূহে গুরুভাবে উৎপন্ন হয়, মন্দভাবে প্রবর্তিত হয়। কারণ কী? যেহেতু উক্ত দশস্থানে চিত্ত পরিশুদ্ধ আছে, এবং উপরে ক্লেশরাশি এখনও পরিত্যক্ত হয় নাই। কোন বংশদ-ের দশপর্ব পর্য্যন্ত গ্রন্থি পরিশুদ্ধ এবং উপরে শাখা-জটা বিজড়িত থাকে তাহা হইলে তাহা আকর্ষণ করিলে দশপর্ব পয্যন্ত সহজে নামিয়া আসে, কিন্তু তাহার উপরাংশ অনমনীয় থাকে। কারণ কী? নিুাংশ পরিশুদ্ধ এবং উপরাংশ শাখা-জটা বিজড়িত হেতু এইরূপ হয়। মহারাজ, এই প্রকারে যাঁহারা অনাগামী হইয়াছেন, যাঁহাদের পঞ্চ নিুভাগীয় বন্ধন প্রহীণ হইয়াছে, তাঁহাদের সেই চিত্ত দশস্থানে লঘু ও সহজ হয়, কিন্তু উপরের ভূমিতে গুরু ও নিস্তেজ হয়। ইহার কারণ কী? দশস্থানে চিত্তের পরিশুদ্ধিহেতু এবং উপরি ভূমিতে ক্লেশের অপরিহীণতাহেতু। ইহা চতুর্থ চিত্ত।

২৪। পঞ্চম প্রকার চিত্ত বিভাগ নিুরূপÍমহারাজ! যাঁহারা অর্হৎ হইয়াছেন আস্রব ক্ষয় করিয়াছেন, বিধৌতমল ও ক্লেশমুক্ত হইয়াছেন, যাঁহারা সমস্ত ভার পরিত্যক্ত হইয়াছেন, যাঁহারা সদর্থপ্রাপ্ত ও ভব বন্ধন ছিন্ন হইয়াছেন, যাঁহারা প্রতিসম্ভিদা অর্থাৎ বিশ্লেষণ জ্ঞান অর্জন করিয়াছেন, যাঁহারা শ্রাবক ভূমিতে পরিশুদ্ধ হইয়াছেন, তাঁহাদের চিত্ত শ্রাবক বিষয়ে লঘুভাবে উৎপন্ন হয় এবং লঘুভাবে প্রবর্তিত হয়, কিন্তু প্রত্যেকবুদ্ধ-ভূমিতে গুরুভাবে উৎপন্ন হয়, ধীরে প্রবর্তিত হয়। কারণ কী? কারণ এই যে তাঁহারা শ্রাবক বিষয়ে পরিশুদ্ধ আছেন কিন্তু প্রত্যেকবুদ্ধ বিষয়ে পরিশুদ্ধ আছেন।

“মহারাজ! বাঁশের সমস্ত পর্ব গ্রন্থি যদি পরিশুদ্ধ হয় তবে তাহা আকর্ষণ করিলে উহার আগমন সহজ ও ত্বরান্বিত হয়। কারণ কী? কেননা, বাঁশের সর্ব পর্ব-গ্রন্থি পরিষ্কৃত এবং গহনত্ব বিবর্জিত।”

“মহারাজ! এই প্রকারে, যাঁহারা অর্হৎ হইয়াছেন, তাঁহাদের চিত্ত শ্রাবক বিষয়ে লঘু প্রযত্নে উৎপন্ন হয় এবং সত্বর প্রবর্তিত হয়। কিন্তু প্রত্যেকবুদ্ধ- ভূমিসমূহে গুরু প্রযতেœ উৎপন্ন হয় ও ধীরে প্রবর্তিত হয়। ইহার কারণ কী? কারণ, শ্রাবক-বিষয়ে পরিশুদ্ধি হেতু এবং প্রত্যেক-বুদ্ধ বিষয়ে অপরিশুদ্ধি হেতু। ইহা পঞ্চচিত্ত।

২৫। ষষ্ঠ প্রকার চিত্ত বিভাগ নিুরূপÍমহারাজ! যাঁহারা প্রত্যেক বুদ্ধ, স্বয়ম্ভূ যাঁহাদের আচার্য নাই, যাঁহারা গ-ারতুল্য একচারী এবং যাঁহারা আপন বিষয়ে পরিশুদ্ধ ও বিমল-চিত্ত হইয়াছেন, তাঁহাদের চিত্ত স্বীয় বিষয়ে লঘু প্রযত্নে উৎপন্ন হয় ও লঘুভাবে প্রবর্তিত হয়। কিন্তু সর্বজ্ঞবুদ্ধ-ভূমিতে গুরু প্রযতেœ উৎপন্ন হয় ও বিলম্বে প্রবর্তিত হয়। কারণ কী? কারণ তাঁহারা স্বীয় বিষয়ে পরিশুদ্ধ কিন্তু সর্বজ্ঞ বুদ্ধভূমি অতি মহান্। যেমন মহারাজ! কোন ব্যক্তি নিজের দেশে ক্ষুদ্র নদীতে দিবা কিংবা রাত্রিতে ইচ্ছামত নির্ভয়ে অবতরণ করে কিন্তু অন্যত্র গভীর, বিস্তৃত, অগাধ ও অপার সমুদ্র দেখিয়া ভীত হয়, ইতস্ততঃ করে এবং অবতরণ করিতে সাহস করে না। কারণ কী? কারণ, সেই নিজের দেশের নদীর সহিত পরিচিত কিন্তু মহাসমুদ্র মহান্। মহারাজ! এই প্রকারে যাঁহারা প্রত্যেকবুদ্ধ স্বয়ম্ভূ, যাঁহাদের আচার্য নাই, যাঁহারা গ-ারতুল্য একচারী এবং যাঁহারা আপন বিষয়ে পরিশুদ্ধ ও বিমল-চিত্ত হইয়াছেন, তাঁহাদের চিত্ত স্বীয় বিষয়ে লঘু প্রযত্নে উৎপন্ন হয় ও লঘুভাবে প্রবর্তিত হয়। কিন্তু সর্বজ্ঞবুদ্ধ-ভূমিতে গুরু প্রযতেœ উৎপন্ন হয় ও বিলম্বে প্রবর্তিত হয়। কারণ কী? কারণ তাঁহারা স্বীয় বিষয়ে পরিশুদ্ধ কিন্তু সর্বজ্ঞ বুদ্ধভূমি অতি মহান্। ইহা ষষ্ঠ চিত্ত।

২৬। সপ্তম প্রকার চিত্ত বিভাগ নিুরূপÍমহারাজ! যাঁহারা সম্যক্ সম্বুদ্ধ, সর্বজ্ঞ, দশবলধারী হইয়াছেন, যাঁহারা চতুর্বিধ বৈশারদ্যে বিশারদ, অষ্টাদশ প্রকার বুদ্ধ ধর্ম সমন্বিত, অনন্ত বিজয়ী, ও অনাবরণ জ্ঞনী হইয়াছেন, তাঁহাদের চিত্ত সর্বত্র লঘু প্রযত্নে এবং লঘুভাবে প্রবর্তিত হয়। কারণ কী? কারণ, তাহা সর্ব বিষয়ে পরিশুদ্ধ।

মহারাজ! যদি কোন সুধৌত, নির্মল, গ্রন্থিহীণ, সুক্ষ্ম ও ধারাল, সরল, অবক্র, অকুটীল শর দৃঢ়রূপে চাপে আরোপিত হয়, এবং উহাকে কোন বলবান লোক পাত্লা ক্ষৌম, কার্পাস বা কম্বলের উপরে সজোরে নিক্ষেপ করে তবে উহা বিলম্বে যায় কি? অথবা সংলগ্ন হয় কি?

“না, ভন্তে!”

“কেন?”

“কেননা, বস্ত্র সূক্ষ্ম ও কোমল, শরও সুধৌত এবং নিক্ষেপকারী অতি বলবান।”

“মহারাজ! এই প্রকারে যাঁহারা সম্যক্ সম্বুদ্ধ সর্বজ্ঞ, দশবলধারী হইয়াছেন, যাঁহারা চতুর্বিধ বৈশারদ্যে বিশারদ, অষ্টাদশ প্রকার বুদ্ধ ধর্ম সমান্বিত, অনন্ত বিজয়ী, ও অনাবরণ জ্ঞানী হইয়াছেন, তাঁহাদের চিত্ত সর্ব বিষয়ে লঘুভাবে উৎপন্ন হয় এবং দ্র ত পরিবর্তন হয়।

কারণ কী? কারণ, তাহা সর্ব বিষয়ে পরিশুদ্ধ। ইহা সপ্তম চিত্ত।

২৭। মহারাজ! সর্বজ্ঞ বুদ্ধগণের এই চিত্ত পূর্বের ষড়্িবধ চিত্ত অপেক্ষা গনণাতিক্রান্তভাবে অসংখ্য গুণে পরিশুদ্ধ ও লঘু। যেহেতু ভগবানের চিত্ত পরিশুদ্ধ ও লঘু সেই কারণে ভগবান যমক প্রাতিহার্য (যুগল আশ্চার্য ঋদ্ধি) প্রদর্শন করেন। মহারাজ! ইহাতেই জানা উচিত, ভগবান বুদ্ধগণের চিত্ত কত লঘু-পরিবর্তনশীল ও দ্র তগামী। এক্ষেত্রে আর উন্নতর কারণ বলা সম্ভব নয়। মহারাজ! সেই সকল প্রাতিহার্যগুলি সর্বজ্ঞ বুদ্ধগণের চিত্তের তুলনায় গণনা সংখ্যা, কলা ও কলাংশও নহে। মহারাজ! ভগবানের সর্বজ্ঞতা জ্ঞান মানসিক চেতনার প্রতিফলন সাপেক্ষ। তিনি যাহা জানিতে ইচ্ছা করেন তাহা ধ্যানস্থ হইয়া মানসিক চেতনা প্রতিফলনের দ্বারা জানিতে পারেন। মহারাজ! যেমন কোন ব্যক্তি এক হস্তে স্থিত কিছু জিনিস অপর হস্তে সহজে স্থাপন করে, খোলা মুখে বাক্য উচ্ছারণ করে, মুখগত খাদ্য গলাধঃকরণ করে, চক্ষু উন্মীলিত করিয়া নিমীলিত করে, পুনঃ নিমীলিত করিয়া উন্মীলিত করে, সংঙ্কুচিত বাহু প্রসারিত করে, অথবা প্রসারিত বাহু সঙ্কুচিত করেএই সমস্ত কার্য করিতে যত সময় লাগে ভগবানের সর্বজ্ঞতা জ্ঞান তদপেক্ষা শীঘ্রতর হয়। তিনি আরও কম সময়ে ধ্যানস্থ হইয়া মানসিক চেতনার প্রতিফলনের দ্বারা যথেচ্ছা জানিতে পারেন। জানার নিমিত্ত তাঁহাদিগকে ধ্যানস্থ হইয়া মানসিক চেতনা প্রতিফলন করিতে হয় কেবল এই বৈকল্যের দরুন ভগবান বুদ্ধেরা অসর্বজ্ঞ একথা বলা চলে না।”

২৮। “ভন্তে! কিন্তু আবর্জন ত এক প্রকার অন্বেষণের দ্বারা করিতে হয়। আচ্ছা! এ বিষয় আপনি আমাকে কারণ সহ বুঝাইয়া দিন।”

“মহারাজ! যেমন, কোন ধনবান লোকের প্রভুত সোনা, রূপা, বিত্তোপকরণ আছে। তাঁহার ভা-ার, হাড়ি-কলস প্রভৃতি ভাজনে ধন, ধান্য, শালি, ব্রীহি, যব, ন্ডুল, তিল, মুগ, মাষ, পূর্বান্ন (ধান্যাদি সাত প্রকার রবিশষ্য), অপরান্ন (শুঁটি প্রভৃতি শষ্যের নাম), ঘৃত, তৈল, মাখন, ক্ষীর, দধি, মধু ও গুড় প্রভৃতি দ্রব্যে পূর্ণ আছে। দৈবাৎ তাঁহার বাড়িতে ক্ষুধার্ত ও অন্ন প্রার্থী অতিথি উপস্থিত হইল। ঘটনাক্রমে তাঁহার গৃহে যে খাদ্য প্রস্তুত ছিল তাহা শেষ হইয়া যায়। সে কারণে কলস হইতে চাল লইয়া রান্না করে। তবে কি, মহারাজ! সেই ব্যক্তি এই সামান্য খাদ্য বৈকাল্যের দরুণ দরিদ্র ও কৃপন নামে অভিহিত হইবে?”

“না, ভন্তে! চক্রবর্তী রাজার প্রসাদেও অসময়ে ভোজন বৈকল্য ঘটেসাধারণ গৃহস্থের কথাই বা কি!”

“মহারাজ! সেইরূপই, তথাগতের সর্বজ্ঞতা জ্ঞান মানসিক চেতনার প্রতিফলন সাপেক্ষ মাত্র, ধ্যানস্থ হইয়া মানসিক চেতনার দ্বারা সর্ব বিষয় তিনি জানিতে পারেন।”

“মহারাজ! যেমন কোন ফলবান বৃক্ষ। ইহা ফলভারে অবনত, ফলগুচ্ছে পরিপূর্ণ কিন্তু বৃক্ষের নীচে একটি ফলও পড়ে নাই। মহারাজ নীচে ফল পড়ে নাইÍএই বৈকল্যমাত্রের জন্য কি বলা যায় যে বৃক্ষটি ফল শূণ্য?”

“না, ভন্তে! বৃক্ষ ফল পতন-প্রতিবদ্ধ। পতিত হইলে লোকে যথেচ্ছ লাভ করিয়া থাকে।”

“এইরূপই মহারাজ! ভগবানের সর্বজ্ঞতা জ্ঞান, মানসিক চেতনার সাপেক্ষ। ইহার দ্বারাই তিনি সর্ব বিষয় জানেন।”

“ভন্তে! যাহা কিছু জানিতে ইচ্ছা হয় বুদ্ধ সমস্ত আবর্জন করিয়া করিয়াই কি জানে?”

“হাঁ, মহারাজ! ভগবান আবর্জন করিয়া করিয়াই তিনি সর্ব বিষয় জানেন। যেমন চক্রবর্তী রাজা যখন চক্ররতœ স্মরণ করেনÍ‘আমার চক্ররত্ন উপস্থিত হউক’ তখন স্মরণ মাত্রেই চক্রতœ উপস্থিত হয়। সেইরূপ তথাগত যাহা জানিতে ইচ্ছা করেন, ধ্যানস্থ হইয়া তাহা জানিতে পারেন।”

“ভন্তে নাগসেন! বুদ্ধের সর্বজ্ঞতা আপনি দৃঢ়ভাবে প্রমাণ করিলেন। বুদ্ধ সর্বজ্ঞ ছিলেন। আমরা বুদ্ধকে সর্বজ্ঞ বলিয়া স্বীকার করি।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

buttons=(Accept !) days=(20)

আমাদের ওয়েবসাইট আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকিজ ব্যবহার করে। দয়া করে সম্মতি দিন। Learn More
Accept !